Monday, June 24, 2024
Homeবিনোদনটেলিভিশনচট্টগ্রামে মুগ্ধতার কথা জানালেন বাঁধন

চট্টগ্রামে মুগ্ধতার কথা জানালেন বাঁধন

সিনেমার পর্দা নামল। ‘দারুণ’ এক সিনেমা দেখার মুগ্ধতা দর্শকদের মধ্যে। ভালো লাগার এ রেশ নিয়ে প্রেক্ষাগৃহ ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তাঁরা। কিন্তু তাঁদের জন্য অপেক্ষা করছিল বড় বিস্ময়। অন্ধকার প্রেক্ষাগৃহে আলো হয়ে তাঁদের সামনে উপস্থিত হলেন ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। পর্দায় দেখা সংগ্রামী নারীর অন্য রূপ দেখলেন চট্টগ্রামের মানুষ। তাঁদের ভালোবাসায় আবেগাপ্লুত আজমেরী হক বাঁধন। জানালেন সিনেমা নিয়ে মানুষের ভালোবাসা আর উচ্ছ্বাসের কথা।

গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় কাজীর দেউড়ির প্রেক্ষাগৃহ সুগন্ধায় সিনেমার কলাকুশলীদের নিয়ে প্রবেশ করেন বাঁধন। শুরুতে নিজের উচ্ছ্বাসের কথা জানালেন তিনি। বললেন, ‘সমুদ্রপারের শহর চট্টগ্রাম। এই শহরের মানুষের মনও অনেক বিশাল। ‘রেহানা মরিয়ম নূর’–এর পরিচালক থেকে শুরু করে অনেকেই এই শহরের বাসিন্দা। এটা আপনাদেরই (চট্টগ্রামের মানুষ) সিনেমা। এ সিনেমা নিয়ে আপনাদের উচ্ছ্বাসে আমরা অনেক আনন্দিত।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএসইসির চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘শেয়ারবাজারে ভালো কোম্পানির পাশাপাশি পণ্যবৈচিত্র্যও কম। তাই বাজারে ভালো কোম্পানির সংখ্যা বাড়ানোর পাশাপাশি পণ্যবৈচিত্র্য বাড়াতে কাজ করছে বর্তমান কমিশন। আমাদের জিডিপিতে শেয়ারবাজারের অংশ মাত্র ১৯ থেকে ২০ শতাংশ। কিন্তু পৃথিবীর অনেক দেশের শেয়ারবাজার সেসব দেশের জিডিপির প্রায় শতভাগ। সেই বিবেচনায় আমাদের বাজারের সম্ভাবনা বিপুল। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হলে মানবসম্পদ উন্নয়নের পাশাপাশি বাজারের স্বচ্ছতা বাড়াতে হবে।’

বিএসইসির সাবেক চেয়ারম্যান এম খাইরুল হোসেন বলেন, ‘আমাদের শেয়ারবাজারে তথ্যের একধরনের অসমতা রয়েছে। এ কারণে তথ্যকে নানাজন নানাভাবে ব্যবহার করেন। শেয়ারবাজারে তথ্যের এ অসমতা দূর করতে সাংবাদিকেরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে পারেন। তাঁদের মাধ্যমেই বিনিয়োগকারীরা সঠিক ও যথাযথ খবর জানতে পারেন। তাই সাংবাদিকেরা যত বেশি দক্ষ হবেন, ততই শেয়ারবাজার ও সমাজের মঙ্গল।’

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular