Saturday, April 13, 2024
Homeফিচারনেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে গণধর্ষণ করা হয় ওই কলেজছাত্রীকে

নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে গণধর্ষণ করা হয় ওই কলেজছাত্রীকে

রাজধানীর লালবাগে আলোচিত গণধর্ষণের শিকার তরুণীকে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাওয়ানো হয়। পরে চার দিন ধরে আটকে রেখে তার ওপর নির্যাতন চালায় অভিযুক্তরা। এ অভিযোগের ভিত্তিতে আজ বৃহস্পতিবার ভোরে লালবাগ এলাকা থেকে প্রধান অভিযুক্ত মনির হোসেন শুভকে আটক করেছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, লালবাগ এলাকা থেকে কলেজছাত্রীকে তুলে নিয়ে চার দিন আটকে রেখে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখার সহযোগিতায় র‌্যাব-৩-এর একটি দল রাজধানীর চকবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রধান অভিযুক্ত মো. মনির হোসেন শুভকে আটক করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত যুবক জানায়, সে বর্তমানে বিবিএর শিক্ষার্থী। জিজ্ঞাসাবাদে সে দাবি করেছে, ভিকটিমের সঙ্গে গত এক মাস আগে লালবাগের একটি বাসায় তার এক বন্ধুর মাধ্যমে পরিচয় হয়। আটক যুবকের বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া চলমান।

ভিকটিমের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, তিনি থাকেন লালবাগে। প্রতিবেশী শুভ নামের এক ছেলে তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিলেও তিনি রাজি হননি। গত শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে পড়তে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হলে শুভ, তার বন্ধু শাকিল ও আলামিন তাকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর অজ্ঞাত কোনো স্থানে নিয়ে ওই তিনজনসহ চারজন মিলে তাকে ধর্ষণ করে।

পরে বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীকে টিএসসি থেকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করেন। বর্তমানে তিনি ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular