Sunday, May 19, 2024
Homeবাংলাদেশসীমান্তে বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা!

সীমান্তে বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা!

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বড়ছড়া সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে অনুপ্রবেশকারী জনিক মিয়া (২৫) নামের বাংলাদেশি এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভারতীয় যুবকরা। আজ সোমবার ভোরে তাহিরপুর উপজেলার ভাঙ্গারঘাট কোয়ারি জিরো পয়েন্টে এলাকায় ভারতীয় যুবকরা তার ওপর হামলা চালায়।

নিহত জনিক উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী বড়ছড়া গ্রামের জিলু মিয়ার ছেলে।

সীমান্তে জনিক মিয়ার ওপর হামলা হয়েছে বিষয়টি কয়লা আমদানিকারক সমিতির কাছ থেকে শুনেছেন বলে জানান স্থানীয় ইউপি সদস্য সাফিল মিয়া। আহত অবস্থায় তাকে সীমান্তে ফেলে রেখে যায় ভারতীয়রা। পরে বাংলাদেশে তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় ও নিহতের পরিবারের সূত্রে জানা যায়, সোমবার ভোর রাতে জনিক মিয়া কাজের জন্য বড়ছড়া সীমান্তের ম্যানেজার বাংলো দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করেছিল। এসময় সেখানকার ভারতীয় লোকজন চোর সন্দেহে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে আজ সোমবার সকালে জিরো পয়েন্টের ভাঙ্গারঘাট কোয়ারি নামক স্থানে তাকে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে নিহতের পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন, বড়ছড়া সীমান্তে ভারতীয় যুবকদের মারপিটে স্থানীয় এক যুবক মারা গেছে বলে জানা গেছে। তবে তার পরিবারের লোকজন বিষয়টি আমাদের জানায়নি।

সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মাহমুদা আক্তার বলেন, তাহিরপুরের জনিক মিয়া নামের একজনকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আনা হয়েছিল। তবে হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। আমাদের ধারণা রাতেই তার মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরে মাটি লাগানো রয়েছে। লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে।

সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, এ ধরনের একটি ঘটনা শুনেছি। তবে যুবকের পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ এখনও অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular