রুশ-ইউক্রেন উত্তেজনায় তেলের বাজার চড়া

0
126

রাশিয়া ও ইউক্রেন উত্তেজনা তুঙ্গে ওঠায় আন্তর্জাতিক জ্বালানিপণ্যের বাজারে সংকট দেখা দিচ্ছে। এতে তেলের দাম বাড়ছে বলে গতকাল বিবিসির খবরে বলা হয়েছে।

খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতিব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুড তেল বিক্রি হচ্ছে ৯৭ দশমিক ৭৬ ডলারে, যা গত সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। প্রসঙ্গত সোমবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের দোনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করায় চলমান উত্তেজনা চরম অবস্থা বিরাজ করছে। একই সঙ্গে ওই সব এলাকায় শান্তিরক্ষী বাহিনী হিসেবে রুশ সেনা পাঠানো হয়েছে বলেও খবরে বলা হয়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে পশ্চিমাবিশ্ব নিন্দার পাশাপাশি মস্কোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। তবে রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ হলে জ্বালানি তেলের আন্তর্জাতিক বাজারে তার প্রতিক্রিয়া গুরুতর হবে বলে সতর্কবার্তা দিয়েছেন আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান ম্যানুলাইফ ইনভেস্টমেন্ট ম্যানেজমেন্টের কর্মকর্তা সুয়ে ত্রিন।

বিবিসিকে তিনি বলেন, ‘যদি রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়, সে ক্ষেত্রে জ্বালানি তেল ও গ্যাসের আন্তর্জাতিক বাজারে সরবরাহ স্বাভাবিকভাবেই কমে যাবে, যার একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব পড়বে আন্তর্জাতিক বাজারে। অপর বিনিয়োগ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান ফিডেলিটি ইন্টারন্যাশনালের পরিচালক মাইক কুরির শঙ্কা, অপরিশোধিত তেলের মূল্য আরও বাড়তে পারে এবং একপর্যায়ে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুড তেল ১০০ ডলার বা তার বেশি দামে বিক্রি হবে।

এদিকে পুতিনের ঘোষণা অনুযায়ী স্বাধীন দোনেৎস্ক ও লুহানস্কে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। একই সঙ্গে নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীকেও নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হতে হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছে দেশটি। এ ছাড়া ইউক্রেনের ভূখ-কে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেওয়ার যে সিদ্ধান্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নিয়েছেন, তার বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ), জাতিসংঘ ও সামরিক জোট ন্যাটো।

খবরে বলা হয়, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত দুটি রুশপন্থি অঞ্চলকে রাশিয়া ‘স্বাধীন’ রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার পর ইউক্রেনের ওই দুই অঞ্চলে যে কোনো ধরনের পুঁজি বিনিয়োগ, ব্যবসা বা অন্য কোনো ধরনের লেনদেনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তার এ সংক্রান্ত নির্দেশনায় বলা হয়েছে- কেউ এ নির্দেশ লঙ্ঘন করলে তাকেও কঠোর নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here