সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর তরুণীকে মুখ বেঁধে ফেলে গেল রাস্তায়

0
130

হবিগঞ্জে মাধবপুরে কম্পানিতে কাজ করতে এসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন চট্টগ্রামের এক তরুণী। দুই দিন আটকে রেখে ধর্ষণের পর ঢাকা সিলেট মহাসড়কের পাশে ফেলে রেখে গেলে অজ্ঞাতরা। রবিবার সন্ধ্যায় মূমুর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী চট্টগ্রামের হাটহাজারী এলাকার বাসিন্দা।

হাসপাতালে ভর্তি ওই তরুণী সাংবাদিকদের জানান, জীবিকার তাগিদে শাহপুর এলাকায় পাইনিওর কম্পানিতে কাজের জন্য ২৫ মার্চ সন্ধ্যায় মাবধপুর উপজেলার দরগাহ গেইট এলাকায় আসেন। শাহপুর যাওয়ার জন্য একটি অটোরিকশায় ওঠেন তিনি। ওই রিকশায় আরো দুই যুবক ছিল। পরে অটোচালক তাকে পার্শ্ববর্তী রিয়াজনগর গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে তাকে একটি ঘরে আটকে রেখে দুদিন ধরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে। এতে করে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন ওই তরুণী। রবিবার বিকেলে তাকে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের পাশে মুখ বেঁধে ফেলে চলে যায় তারা। স্থানীয়দের সহযোগিতায় ওই তরুণী মাধবপুর থানায় গেলে তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ।

নির্যাতনের শিকার ওই তরুণী আরো জানায়, চিৎকার করায় ধর্ষকরা তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে জখম করে। তাকে হত্যার ভয় দেখিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়।

মাধবপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক জানান, ঘটনাটি জানার পর ওই তরুণীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পুলিশ তার কাছ থেকে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করছে। তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুত অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here